১৭ বছর পর রোনালদোর এমন শূন্যতা

তিন দিন আগে-পরে ফুটবলের কি ভিন্ন দুই রূপ দেখলেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো!

গত শনিবার লিগে টটেনহামের বিপক্ষে দলকে ৩-২ গোলে জেতানোর পথে হ্যাটট্রিকই করেছেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের ৩৭ বছর বয়সী পর্তুগিজ ফরোয়ার্ড। জোসেফ বাইকানের প্রকৃত গোলসংখ্যা নিয়ে চেক প্রজাতন্ত্রের ফুটবল ফেডারেশনের দাবি অগ্রাহ্য করলে বলা যায়, ইতিহাসগড়া হ্যাটট্রিকই করেছেন রোনালদো, বাইকানকে (৮০৫ গোল) ছাপিয়ে বনে গেছেন সর্বকালের সেরা গোলদাতা (৮০৭ গোল)।

কিন্তু তিন দিন পর রোনালদো হতাশ করলেন, হতাশ হলেনও। আতলেতিকো মাদ্রিদের কাছে হেরে গতকাল চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোলোতেই বিদায় নিয়েছে রোনালদোর ইউনাইটেড। ম্যাচে রোনালদো একেবারেই নিষ্প্রভ ছিলেন। এ নিয়ে টানা দ্বিতীয় মৌসুমে শেষ ষোলোতেই বিদায়ের কষ্ট তো পোড়াচ্ছেই, পাশাপাশি এ হার নিশ্চিত করে দিল, ১৭ বছর পর কোনো মৌসুমে প্রথমবার শিরোপাহীন থাকতে হচ্ছে রোনালদোকে।

প্রথম লেগে আতলেতিকোর মাঠে ১-১ গোলের ড্র নিয়ে ফেরা ইউনাইটেড কাল নিজেদের মাঠে দ্বিতীয় লেগে হেরেই গেছে ১-০ গোলে। লিগে এবার শিরোপার দৌড়ে অনেক আগে থেকেই ছিটকে পড়েছে, লিগ কাপ আর এফএ কাপেও পথচলা শেষ হয়ে গেছে আগেই। বাকি ছিল শুধু চ্যাম্পিয়নস লিগ, আর ‘মিস্টার চ্যাম্পিয়নস লিগ’ রোনালদো যখন দলে, ইউনাইটেড ভক্তদের স্বপ্ন দেখতে দোষ কী ছিল! কিন্তু স্বপ্নটা অধরাই থেকে গেল।

এ নিয়ে টানা পাঁচ মৌসুম শিরোপাশূন্য থাকছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। আর রোনালদোর শিরোপার উদ্‌যাপন না দেখা মৌসুম কাটছে ২০০৫ সালের পর প্রথম। সেবার লিগে তৃতীয় ইউনাইটেড চ্যাম্পিয়নস লিগে বাদ পড়েছিল শেষ ষোলোতেই। এফএ কাপে ফাইনালে উঠেও টাইব্রেকারে হেরেছে আর্সেনালের কাছে, আর লিগ কাপে হেরেছে সেমিফাইনালে। ২০ বছরের রোনালদো তখনো ইউনাইটেডে সবে কুঁড়ি থেকে ফুল হয়ে ফুটতে শুরু করেছেন।

১৭ বছর সৌরভ ছড়ানো শেষে ফুলটা এখন শুকাতে শুরু করেছে। মাঝেমধ্যে দমকা বাতাসে হয়তো একটু-আধটু সৌরভ নাকে আসে, বেশির ভাগ সময় নুইয়েই থাকে ফুলটা। এ বয়সে ইউনাইটেডে দ্বিতীয় দফায় ফেরা রোনালদোর শেষের গানই শোনা যাচ্ছে। আগের মৌসুমে লিগে দ্বিতীয় ইউনাইটেড এবার সেরা চারে থেকে আগামী মৌসুমের চ্যাম্পিয়নস লিগে জায়গা করে নিতে পারবে কি না, তা-ই এখন শঙ্কায়। লিগে আর ৯ ম্যাচ বাকি রোনালদোদের, ৫০ পয়েন্ট নিয়ে লিগে পঞ্চম তারা। প্রথম চার দল জায়গা পায় চ্যাম্পিয়নস লিগে, ৪ নম্বরে থাকা আর্সেনাল তিন ম্যাচ কম খেলেই ১ পয়েন্টে এগিয়ে। এফএ কাপে এবার চতুর্থ রাউন্ডেই বাদ পড়েছে ইউনাইটেড। লিগ কাপে তৃতীয় রাউন্ডে। চ্যাম্পিয়নস লিগে বাদ পড়ল দ্বিতীয় রাউন্ডেই!

আতলেতিকোর বিপক্ষে কাল ব্যক্তিগত আরেকটা তেতো রেকর্ডও হয়েছে রোনালদোর। নিষ্প্রভ পর্তুগিজ ফরোয়ার্ড পুরো ম্যাচে একটা শটও নিতে পারেননি। চ্যাম্পিয়নস লিগে এ নিয়ে এমনটা তৃতীয়বার হলো রোনালদোর, এর আগে এমন হয়েছে ২০১১ সালের চ্যাম্পিয়নস লিগে রিয়াল মাদ্রিদের জার্সিতে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী বার্সেলোনার বিপক্ষে।

তবে শুধু রোনালদো পারছেন না বলেই যে ইউনাইটেডের এমন দশা, তা মানতে রাজি নন ইউনাইটেডে রোনালদোরই সাবেক সতীর্থ পল স্কোলস। ইংলিশ মিডফিল্ডারের চোখে, ইউনাইটেডের মূল সমস্যা ক্লাবের প্রশাসনে, কোচিংয়ে। শুধু রোনালদো কেন, নতুন সময়ের তারকা ফরোয়ার্ড কিলিয়ান এমবাপ্পে কিংবা আর্লিং হরলান্ডকে ক্লাবে টেনে নিলেও ইউনাইটেড একই থাকবে বলে মনে হচ্ছে স্কোলসের।

‘অনেক দিন ধরেই বলে আসছি, যত দিন না আমরা একজন যথাযথ কোচ নিয়োগ দিতে পারব, একজন উঁচু মানের ভিন্ন ধরনের কোচ, যিনি ফুটবল ম্যাচ জেতাতে জানেন, খেলোয়াড়দের মনে ভয় ধরাতে পারবেন, আমরা সেরাদের সারিতে ফিরতে পারব না। এই গ্রীষ্মে আপনি যদি এমবাপ্পে বা হরলান্ডকেও নিয়ে আসেন, ইউনাইটেড তবু লিগ জিতবে না। কোন খেলোয়াড়কে আনছেন, তা বড় ব্যাপার নয়, শুরুটা ওপরের দিক থেকেই হওয়া উচিত’—কাল ম্যাচের পর বিটি স্পোর্টসে স্কোলসের বিশ্লেষণ।তুলনায় লিগে দুই প্রতিদ্বন্দ্বী লিভারপুল আর ম্যানচেস্টার সিটির প্রসঙ্গ টেনে এনেছেন, ‘লিভারপুল আর ম্যান সিটি এখন সেরাদের সারিতে। ওরা মানের সীমাটা অনেক উঁচুতে বেঁধে দিয়েছে। ওরা যেভাবে ধারাবাহিকভাবে ভালো খেলছে, যেভাবে পয়েন্ট পাচ্ছে…ওদের চ্যালেঞ্জ জানাতে (ইউনাইটেডের) দুই-তিন-চার বছর লেগে যেতে পারে।’

Leave comment

Your email address will not be published. Required fields are marked with *.